Banking

বিকাশ পিন রিসেট করার নিয়ম ২০২৩ – বিকাশের পিন জানার উপায়

একজন বিকাশ ব্যবহারকারী হিসেবে আপনি বিকাশ একাউন্টের পিন ভুলে যাওয়ার সমস্যায় ভুগতে পারেন তবে এর পিন ভুলে গেলে হতাশ হওয়ার কোনো কারণ নেই কেননা আপনি খুব সহজেই আপনার বিকাশ পিন রিসেট করতে পারবেন।

বিকাশ মোবাইল ব্যাংকিং সেবার সম্প্রতি বেশকিছু সহজ পদ্ধতির মাধ্যমে পিন রিসেট চালু করেছে আজকে আমরা এই পিন রিসেট অর্থাৎ বিকাশ একাউন্টের পিন ভুলে গেলে কিভাবে তা পুনরায় সেট করবেন তা নিয়ে কিছু তথ্য আপনাদের সামনে উপস্থাপন করেছে।

বিকাশ পিন কী?

পিন এর পূর্ণরূপ পার্সোনাল আইডেন্টিফিকেশন নাম্বার। ইহা এমন একটি ব্যাক্তিগত নাম্বার যার মাধ্যমে আপনি আপনার কোন বিকাশ একাউন্টে প্রবেশ করতে পারবেন এবং টাকা আদান প্রদান করতে পারবেন। বিকাশ ব্যবহারকারীদের জন্য এই পিন নাম্বারটি অতিগুরুত্বপূর্ণ যার কারণে নিরাপত্তা সুবিধার্থে আপনি এই পিন নাম্বারটি অবশ্যই গোপনীয় হবে।

যার কারণে আপনার এই গোপন পিন নাম্বারটি অন্য কাউকে বলে দেওয়া যাবে না যার কারণে হলে আপনার নিরাপত্তা দুর্বল হয়ে যাবে। আপনি যখন বিকাশ একাউন্ট চালু করবেন তখন আপনাকে একটি পিন নাম্বার প্রদান করতে বলা হয় যে ৬ ডিজিটের আমরা বিকাশের লগইন এর কাজে ব্যবহার করে থাকি তা বিকাশ পিন হিসেবে পরিচিত।

বিকাশ পিন লক হয় কেন ?

আপনাদের মাঝে অনেকেই জানতে চেয়েছেন যে বিকাশ পিন কিভাবে লক হয়। সাধারণত কোনো গ্রাহক যদি তিনবারের বেশি ভুল পিন প্রদান করে থাকে সে ক্ষেত্রে তার বিকাশ পিন নাম্বারটি ব্লক হয়ে যায় এটি সাধারণত বিকাশের আসল গ্রাহক ছাড়া অন্য কেউ যখন লগইন করার চেষ্টা করে সেক্ষেত্রে তাদের সুরক্ষার লক্ষ্যেই এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

বিকাশে পেমেন্ট বিকাশ একাউন্টের কোন রকমের তিনবার ভুল টাইপ করলে বিকাশ একাউন্ট লক হয়ে যায় তাহলে আপনি পুনরায় চেষ্টা না করে সরাসরি বিকাশ একাউন্টের এজেন্ট এর সাথে কথা বলুন এবং আপনার লোককে সরিয়ে নিতে পারেন।

বিকাশ পিন ভুলে গেলে করণীয়

আপনি যদি কোনো কারণে বিকাশের পিন নাম্বারটি ভুলে যান এক্ষেত্রে আপনার ঘাবড়ানোর কোনো কারণ নেই। বিকাশ যেহেতু বাংলাদেশের প্রধান মোবাইল ব্যাংকিং সেবা দানকারী প্রতিষ্ঠান গুলোর মধ্যে অন্যতম তাই নিরাপত্তার খাতিরে এ প্রতিষ্ঠানটি অনেক কঠোরতা বজায় রেখেছে।

নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে বিকাশ পিন ভুলে গেলে তা রিসেট করার ক্ষেত্রে বেশ কিছু কার্যকরী প্রক্রিয়া রয়েছে যা অনুসরণ করে আপনি সহজেই বিকাশের পিন রিসেট করতে পারবেন। আগে বিকাশ পিন ভুলে গেলে রিসেট করার ক্ষেত্রে আপনাকে বিকাশের হেল্পলাইনে যোগাযোগ করতে হতো কিন্তু বর্তমানে এখন আপনি ঘরে বসে থেকে বিকাশ পিন রিসেট করতে পারবেন।

নির্দেশনা ও শর্তাবলি  

আপনি যদি কোনো কারণে বিকাশের পিন ভুলে যান তাহলে তা রিসেট করার পূর্বে বেশ কিছু নির্দেশনা মেনে চলতে হবে। বিকাশ করতে পক্ষ এই শর্তাবলী গুলা তাদের অফিশিয়াল ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে প্রকাশ করেছে যা মেনে চলা আবশ্যক চলুন জেনে নেই কি কি নির্দেশনা রয়েছে।

  • নতুন পিন রিসেট করার সময় পিন টি অবশ্য এর 6 ডিজিটের হতে হবে।
  • পিন সেটাপের ক্ষেত্রে শুধুমাত্র সংখ্যা ব্যবহার করা যাবে।
  • নতুন পিন সেট করার ক্ষেত্রে পূর্বে ব্যবহৃত পিন নতুন করে ব্যবহার করা যাবে না।
  • পিন নাম্বার টির প্রথম সংখ্যাটি শূন্য (0) হওয়া যাবে না।
  • 8 ঘণ্টার মধ্যে দুইবার বিকাশ পিন পরিবর্তন করা যাবে না।
  • ধারাবাহিক বা একই রকমের সংখ্যা ব্যবহার করা যাবে না।

বিকাশ পিন রিসেট করার নিয়ম

বিকাশের পিন নম্বর ভুলে গেলে তারে সেট করার ক্ষেত্রে আপনি দুইটি পদ্ধতি অবলম্বন করতে পারেন বিকাশ মোবাইল ব্যাংকিং মেনু অর্থাৎ ইউএসএসডি কোড এবং মোবাইল অ্যাপ। আমরা নিচের অংশের দুটি বিষয় নিয়ে এখানে আলোচনা করেছি।

Screenshot-2022-01-27-at-8-42-07-AM


Screenshot-2022-01-27-at-8-42-26-AM
Screenshot-2022-01-27-at-8-42-39-AM

ইউএসএসডি কোড (USSD) বা মোবাইল ব্যাংকিং মেনু থেকে বিকাশ পিন রিসেট পদ্ধতি

  • আপনার মোবাইলে ডায়াল প্যাড এ গিয়ে *247# ডায়াল করুন
  • যেহেতু আপনি পিন রিসেট করবেন তাই (Pin Reset) রিসেট পিন অপশনে প্রবেশ করতে নয় লিখে রিপ্লাই করুন।
  • পরের ধাপে আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র পাসপোর্ট অথবা ড্রাইভিং লাইসেন্স এর নাম্বার চাওয়া হবে আপনি বিকাশ একাউন্ট খোলার সময় যে তথ্য দিয়ে একাউন্ট চালু করেছেন তা প্রদান করুন।
  • জাতীয় পরিচয় পত্র অনুসারে যে জন্ম সাল রয়েছে তা প্রদান করুন।
  • গত 3 মাসের মধ্যে করা দশটি লেনদেনের মধ্যে যেটা মনে আছে তার একটি যাচাই করুন।
  • কত টাকা লেনদেন করেছেন তা রিপ্লাই করুন।
  • আপনার দেওয়া তথ্যগুলো যদি সঠিক হয় তাহলে এসএমএসের মাধ্যমে একটি অস্থায়ী পিন নাম্বার পাঠানো হবে।

যেহেতু আপনি অস্থায়ী একটি পিন নাম্বার পেয়েছেন তাই আপনাকে এখন নিজের পছন্দমত একটি পিন সেট আপ করতে হবে।

  • পিন সেট আপের লক্ষ্যে আপনাকে প্রথমেই *247# ডায়াল করতে হবে।
  • 1 লিখে সেন্ড করুন।
  • এরপর এসএমএসে পাওয়া অস্থায়ী পিন নম্বরটি প্রদান করুন।
  • নতুন পিন নাম্বার পরপর দুইবার প্রদান করুন।
  • আপনি আপনার পিন রিসেট সফলভাবে করতে পেরেছেন।

অ্যাপ থেকে বিকাশ পিন রিসেট

আপনি যদি একজন স্মার্ট ফোন ব্যবহার করি ভালোই থাকেন এবং আপনি বিকাশ অ্যাপের মাধ্যমে টাকা লেনদেন করে থাকেন তাহলে এ মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনটি ব্যবহার করে বিকাশ পিন রিসেট করতে পারবেন।

Screenshot-2022-01-27-at-8-43-01-AM

  • বিকাশ পিন নাম্বারটি রিসেট করার ক্ষেত্রে প্রথমে বিকাশ অ্যাপ এ প্রবেশ করুন তবে মনে রাখবেন আপনার ফোনে যদি বিকাশ অ্যাপটি ইনস্টল না করা থাকে তাহলে এখনি গুগল প্লে স্টোরে গিয়ে ইন্সটল করে নিন।
  • বিকাশ নাম্বারটি প্রদান করুন।
  • আপনি পিন ভুলে গিয়েছেন তাই Forgot Pin লেখায় ক্লিক করুন।
  • রিসেন্ট Reset Pin এ ক্লিক করুন।
  • এখানে আপনার মোবাইল নাম্বারটি দেখাতে হবে পরবর্তী চাপুন।
  • আপনি যে মোবাইল অপারেটর ব্যবহার করেন সে ছিম কম্পানী সিলেক্ট করুন।
  • ওয়ান টাইম পাসোয়ার্ড (OTP) আসার লক্ষ্যে কোনো অনুমতি পেলে তা Allow করে দিন।
  • এরপর অটোমেটিক্যালি আপনার ওয়ান টাইম পাসোয়ার্ড সাবমিট হয়ে যাবে।
  • মোবাইলে এসএমএসের মাধ্যমে পাওয়া পিন নাম্বারটি প্রদান করুন।
  • আপনি যে নতুন পিন ব্যবহার করতে চান তা পরপর দুইবার প্রবেশ করান।
  • শেষ ধাপে নতুন পিন দিয়ে লগইন করে দেখুন আপনার পিন রিসেট হয়েছে কিনা।

পরিশেষে আমরা আপনাদের জানাতে চাই যে আপনারা অবশ্যই আমাদের নির্দেশনাগুলো যথাযথভাবে মেনে চলবেন এবং আপনার বিকাশের পিন নাম্বারটি রিসিভ করবেন। বিকাশ কর্তৃপক্ষকে প্রতিদিন তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটের মাধ্যমে নিত্য নতুন পদ্ধতি প্রকাশ করছে তাই এ সকল বিষয় সম্পর্কে জানতে তাদের ওয়েবসাইট নিয়মিত ভিজিট করুন।

Related Articles

Back to top button
Close