Gadgets

ড্রোন ক্যামেরার দাম ২০২৪ – কম দামে সেরা ড্রোন ক্যামেরা

ড্রোন সাধারণত এটি একটি ক্যামেরা। যা দেখতে ছোট্ট হেলিকপ্টারের মত। প্রথম দেখায় এটা কে? ছোট্ট খেলনা হেলিকপ্টার মতন রাখতে পারে তবে আসলে সেটা কোন রকম খেলনা নয় এটা সাধারণত বিভিন্ন রকম ছবি এবং ভিডিও শুটের জন্য ব্যবহার হয় এই ড্রোন ক্যামেরা।

আপনারা যারা ড্রোন সম্পর্কে কিছু জানেন না বা ড্রোন সম্পর্কে তেমন কোন আইডিয়া নাই যেমন এর দাম কত টাকা এবং কিভাবে এই ড্রোন ব্যবহার করা হয় এ সকল বিস্তারিত যদি আপনি না জেনে থাকেন তবে আমাদের এই সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ে জেনে নিতে পারবেন সাধারণত ড্রন কি এবং কি কাজে ব্যবহার হয় এবং ড্রোন কিনতে গেলে কত টাকা খরচ হবে। তাই আর বেশি দেরি না করে এক্ষুনি জেনে নিন গ্রহণ সম্পর্কিত বিস্তারিত তথ্য।

ড্রোন ক্যামেরা:

সাধারণত আমরা মোবাইলের ক্যামেরা অথবা যে কোন ক্যামেরা দিয়ে ছবি তুলতে পারি তবে সেই ক্ষেত্রে মোবাইল দিয়ে কিংবা যে কোন ক্যামেরা দিয়ে আমরা আকাশ থেকে কোনো রকম ছবি তুলতে পারবো না বা আকাশে উড়ন্ত পথে মোবাইল দিয়ে বা ক্যামেরা দিয়ে ছবি তোলা প্রায় অসম্ভব।

তবে এখন বর্তমানে ড্রোন ক্যামেরা ব্যবহার করে অনেক উপর থেকেও ছবি তোলা সম্ভব এবং নানান রকম প্রাকৃতিক দৃশ্যের ভিডিও ফুটেজ তৈরি করা খুবই সহজ একটা ব্যাপার ড্রোনের মাধ্যমে।

ড্রোন ক্যামেরা কোথায় কিনতে পাওয়া যায়:

ড্রোন ক্যামেরা বিক্রি হয়ে থাকে বিভিন্ন ইলেকট্রনিক পণ্যের দোকানে। এবং অনলাইনেও ব্যাপকভাবে সেল হয়ে থাকে ড্রোন ক্যামেরা। যে সকল দোকানে ইলেকট্রনিক বিভিন্ন রকম পণ্য পাওয়া যায়। 

এছাড়াও ড্রোনের আলাদাভাবে দোকান অনেকেই আছে। আপনার সেই সকল দোকান থেকে গিয়ে এই সমস্ত ড্রোন ক্যামেরা গুলো কিনতে পারবেন। এছাড়াও ফেসবুকে বা অন্যান্য অনেক অনলাইন পেজ আছে। যেগুলো ড্রোন ক্যামেরা বিক্রি করে থাকে। আপনি তাদের মাধ্যমে অনেক সহজেই ড্রোন ক্যামেরা কিনতে পারবেন।

ড্রোন ক্যামেরার ব্যবহার:

আপনারা অনেকে ভাবছেন এই ড্রোন ক্যামেরা কিভাবে আকাশে উড়িয়ে ছবি তোলা যাবে। তাই আপনারা অনেকেই এমন চিন্তা-ভাবনা করছেন তবে আমি বলব প্রথমত আপনাদের এমন চিন্তা হওয়াটাই স্বাভাবিক। কেননা একটি ড্রোন ক্যামেরা চালানো খুব একটা সহজ কাজ নয়। তবে আপনি যদি প্র্যাকটিস করেন তবে অবশ্যই আপনিও ড্রোন ক্যামেরা চালাতে পারবেন।

সাধারণত ড্রোন ক্যামেরা ব্যবহার করা হয় বিভিন্ন রকম ছবি এবং ভিডিও তৈরীর ক্ষেত্রে । একটি সিনেমাতে অনেক রকম শুট করা হয় যে সুদ গুলো অনেক সময় দেখা যায় আকাশ থেকে কিংবা যে সকল স্থানে মানুষ ক্যামেরা নিয়ে ভিডিও করতে পারে না সেই সকল স্থানগুলোতে ড্রোন ক্যামেরা পাঠিয়ে ভিডিও করা সম্ভব যার কারণে মানুষদের কষ্ট করে সেরকম সিচুয়েশনে ভিডিও করতে হয় না শুধুমাত্র ড্রোন ক্যামেরা পাঠিয়েই ভিডিওটি করা সম্ভব হয়।

এছাড়াও কোন ভয়ানক দুর্ঘটনা যদি ঘটে থাকে সে আশেপাশে যদি কোন মানুষের যাওয়ার পরিস্থিতি না হয়ে থাকে তবে সেই ক্ষেত্রে লোন পাঠিয়ে ভিডিওর মাধ্যমে দেখা যাবে সেখানে কি হয়েছে বা সেখানকার পরিস্থিতি কি সাধারণত ড্রোন ব্যবহার করা হয়। তবে আপনারা অনেকেই জানেন না এই ড্রোন ক্যামেরা দাম সম্পর্কে। সাধারণত বাজারে ড্রন অনেক রকম পাওয়া যায় যেগুলো একটু নরমাল থেকে অনেক হাই পর্যন্ত। মানের দিক থেকে আপনি ড্রোন যেমন নেবেন আপনাকে তেমন দাম দিয়ে ড্রোন কিনতে হবে। আপনি যদি ভালো মানের ড্রোন কিনতে চান। সেক্ষেত্রে আপনাকে এর দামও অবশ্যই বেশি দিতে হবে।

তবে আপনি যদি সব থেকে নরমাল ড্রোন গুলো কিনতে চান। সে ক্ষেত্রে আপনাকে ১৮০০০ থেকে ২৫ হাজার টাকার মধ্যে কিনতে হবে। এই দামে যেই ড্রোন ক্যামেরা গুলো পাবেন সেগুলো দিয়েও ভালো সুন্দর ছবি তোলা বা ভিডিও করা সম্ভব।

তবে আপনি যদি আরও বেশি দাম দিয়ে কেনেন সেক্ষেত্রে আপনার ভিডিও কোয়ালিটি এবং ড্রোনের মান অনেকটাই ভালো হবে। তাই আপনি যদি ভালো মানের ড্রোন কিনতে চান। সেই ক্ষেত্রে আপনাকে ৩০ হাজার থেকে এক লাখ টাকা পর্যন্ত অনেক ড্রোন আছে এগুলোর মধ্যে ক্রয় করতে হবে। তবে আপনি একটি ভাল মানের ড্রোন কিনতে পারবেন।

Related Articles

Back to top button
Close