Travel

ফিজি গার্মেন্টস ভিসা ২০২৩ – ফিজি গার্মেন্টস ভিসার বেতন কত

আপনারা হয়তো অনেকেই জানেন ফিজি গার্মেন্টস বিশ্বের অন্যরকম একটি গার্মেন্টস সংস্থা। সেখানে একটি বছরে অনেক পোশাক তৈরি হয়ে থাকে।যে পোশাকগুলো সারা বিশ্বের প্রতিটা দেশের চাহিদা পূরণ করে।  এবং এই পোশাক শিল্পের জন্য ফিজিতে অনেক শ্রমিক প্রয়োজন হয়। যার জন্য বিশ্বের অনেক দেশ থেকেই শ্রমিক নিয়ে থাকে।

নানান দেশের নানান রকম শ্রমিক নিয়ে ফিজি গার্মেন্টসের পোশাক তৈরি হয়ে থাকে। যেমন বাংলাদেশ থেকে অনেক শ্রমিক ফিজি গার্মেন্টস কাজের জন্য গিয়ে থাকে। শুধু তাই নয় এখনো ফিজি গার্মেন্টস কোম্পানিটি প্রচুর লোকের নিয়োগ দিয়েছেন। যার কারণে বাংলাদেশ থেকেও অনেক মানুষ ফিজি গার্মেন্টস ভিসা নিয়ে সেখানে কার্যের সন্ধানে যায়। বা অনেকেই ভিসা নিচ্ছে ফিজিতে যাবার উদ্দেশ্যে।

তাই আপনারা যারা এই ফিজি ভিসা নিয়ে সেখানে গার্মেন্টস কাজের জন্য যেতে চাচ্ছেন। তারা একদম সঠিক জায়গায় এসেছেন। কেননা আমরা এই আর্টিকেলে প্রকাশ করব,, ফিজি গার্মেন্টস ভিসা নিয়ে।  যেমন আপনি কিভাবে এই ভিসাটি করবেন। এবং যাবেন কিভাবে এ সকল প্রসেস আমাদের এই পোস্টের মাধ্যমে জানতে পারবেন। এবং ফিজি গার্মেন্টস এ কাজ করার ফলে আপনি কত টাকা বেতন পাবেন এই সকল আরো অনেক তথ্য জানতে পারবেন আমাদের এই আর্টিকেল থেকে।

তাই এই ফিজা গার্মেন্টস সম্পর্কিত তথ্য গুলো জানতে,, আমাদের সম্পূর্ণ লেখাগুলো পড়ুন। যা থেকে খুব সহজে বুঝতে পারবেন। ফিজি গার্মেন্ট সম্পর্কিত আপনার অজানা তথ্য।

ফিজি গার্মেন্টস ভিসা

ফিজি গার্মেন্টস টি অনেক বড় একটি কোম্পানি যেখানে প্রতিনিয়ত অনেক পদে লোক নিয়োগ দিয়ে থাকে। যেমন: মেশিন মেকারনিক, সুইং অপারেটর, ইলেকট্রনিক সহ আরো অনেক রকম সেক্টরে কাজের লোক নিয়োগ দিচ্ছে। তবে যে কেউ দক্ষ হয়ে এই ফিজি গার্মেন্টসে কাজের জন্য আবেদন করতে পারে। তবে তা পর্যাপ্ত পরিমাণ দক্ষতা দরকার। এবং সে কাজের মধ্যে অনেক রকম সুবিধা ভোগ করতে পারবে। 

বাংলাদেশ থেকে কোন শ্রমিক এই ফিজি গার্মেন্টসে কাজের জন্য গেলে বাংলাদেশের তুলনায় এসে সেখান থেকে অনেক বেতন আয় করতে পারবে। তাছাড়া আরও অনেক রকম সুবিধা গঠিত ভিজি গার্মেন্টস।

ফিজি গার্মেন্টস ভিসার বেতন কত:

ফিজি গার্মেন্টসে যেই শ্রমিক গুলো সুইং অপারেটরে কাজ করে। তাদের বেতন বর্তমানে ৩২ হাজার টাকা থেকে সেই শ্রমিক ৪৫ হাজার পর্যন্ত বেতন তুলতে পারবে। এবং যে সকল শ্রমিক মেশিন মেকারনিক হিসেবে সেই ফিজি গার্মেন্টসে কাজ করে। তারা মাসে ৪০ থেকে শুরু করে ওভারটাইম সহ ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত বেতন তুলতে পারবে।

এছাড়াও আরো যে সকল ক্যাটাগরিতে শ্রমিকরা কাজ করে। সে সকল শ্রমিকের ওভারটাইম সহ আরো বিভিন্ন যে সকল খরচ,, এই সকল খরচ গুলো কোম্পানি বহন করে। এর সাথে সেই শ্রমিকদের দুই বছরের জন্য দেশে আসার বিমান ভাড়া এবং যে সকল খরচ গুলো হয়ে থাকে। এই খরচ গুলো কোম্পানি বহন করবে।

এখানে কাজের পাশাপাশি ওভারটাইমসহ অনেক টাকা ইনকাম করা যায়। যার কারণে আপনি যদি এখানে আসতে চান তাহলে আপনাকে বাংলাদেশ থেকে অভিজ্ঞ শ্রমিক হিসেবে আসার লাগবে। তাহলে এখানে এসে ভালো ক্যাটেগরিতে কাজ পেয়ে যাবেন। 

ফিজি দেশ কেমন:

ফিজি দেশটি বিশ্বের অর্থনৈতিক দিক দিয়ে অনেকটাই এগিয়ে আছে। এবং পরিবেশগত দিক দিয়ে অনেকটাই সুন্দর এবং শান্ত প্রকৃতির দেশ। যেখানে বসবাসের জন্য মানুষ অনেক রকম সুবিধা অনেক আনন্দে আসতে পারবে।

তবে বাইরের দেশ থেকে অনেক মানুষ ফিজিতে পাড়ি জমাতে শুধুমাত্র কাজের জন্য এক্ষেত্রে অনেক সুবিধা দিয়েছেন এই দেশটি যাতে করে শ্রমিকদের কোনো রকম অসুবিধা না হয়। এই দেশ টিতে শুধুমাত্র শ্রমিকরাই আসে না। অনেক মানুষ এই সৌন্দর্য কারণে ভিসা করে থাকে।

গার্মেন্টস প্রয়োজনীয় কাগজপত্র:

একজন ব্যক্তি যদি ফিজি গার্মেন্টস কাজের জন্য আবেদন করতে চাই সে ক্ষেত্রে তাকে অনেক কাগজের প্রয়োজন হবে যে কাগজগুলো খুবই গুরুত্বপূর্ণ। যেমন,, ছয় মাসের ভ্যালিড passport, এনআইডি কার্ডের ফটোকপি, গার্মেন্টস প্রশিক্ষণের সার্টিফিকেট, যে কাজের প্রতি দক্ষতা তার একটি ভিডিও, আপনি বর্তমানে যেখানে কাজে নিয়োজিত আছেন তার প্রমাণ, বেতনের একটি ফটোকপি। এই প্রয়োজনীয় কাগজ ছাড়া আপনি গার্মেন্টসে আবেদন করতে পারবেন না। তাই এই কাগজগুলো খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

Tags

Related Articles

Back to top button
Close