Gadgets

সাইকেলের দাম ২০২৩ – আজকের সাইকেলের দাম

আপনারা হয়তো অনেকে আছেন যারা নতুন একটি সাইকেল কেনার কথা ভাবছেন তবে বর্তমান বাজারজাত অনুযায়ী সাইকেলের দাম কত বা কোন সাইকেলগুলো মানে দিক থেকে কতটা ভালো। তা হয়তো জানার জন্য আপনারা এমনভাবে খোঁজাখুঁজি করছে। তবে বাংলাদেশে বর্তমান বাজারজাত অনুযায়ী সাইকেলের দাম এবং মানের দিক থেকে যে সকল সাইকেলগুলো খুবই ভালো সেগুলো সম্পর্কে আমরা বেশ কিছু ধারণা দিতে পারি যা হয়তো আপনার জন্য অনেক কাজে আসতে পারে।

বর্তমানে বাংলাদেশে অনেক সাইকেল লক্ষ্য করা যায় যেগুলো বিভিন্ন কোম্পানির দ্বারা তৈরি হয়েছে তবে শুধুমাত্র বাংলাদেশি নয় বেশ কিছু সাইকেল ভারত থেকেও রিপোর্ট করা হয় যেগুলো মানের দিক থেকে প্রায় অসাধারণ।

বাংলাদেশী সাইকেল

প্রথমত আপনাদের ধারণা নেয়া প্রয়োজন বাংলাদেশী সাইকেলগুলোর। বাংলাদেশী সাইকেল বলতে বেশ কিছু কোম্পানি রয়েছে যেগুলো খুবই মানসম্মত কিছু সাইকেল বাজার করেছেন। বাংলাদেশি বেশ কিছু সাইকেলের কোম্পানি রয়েছে যেগুলো হলো,,দুরন্ত, রানার। বাংলাদেশী এই দুই ধরনের সাইকেল ব্যতীত আরও বেশ কিছু কোম্পানি রয়েছে যেগুলো উন্নত মানের সাইকেল তৈরি করেছে।

এই সমস্ত সাইকেলগুলোর মধ্যে আপনি বাচ্চাদের সাইকেল থেকে শুরু করে। এডাল্ট পারসন পর্যন্ত সবাই চালাতে পারবে। এমন কিছু সাইকেল তারা বাজারজাত করেছে। তাই বাংলাদেশের সাইকেল গুলো যদি আপনি নিতে চান। সেই ক্ষেত্রে আপনাকে খুব একটা বেশি টাকা দিতে হবে না। কেননা রানার এবং দুরন্ত এই দুটি কোম্পানির সাইকেল গুলো আপনারা খুব কম টাকায় পেয়ে যাবেন যা অন্যান্য সাইকেল গুলো চেয়ে খুবই কম।

রানার এবং দুরন্ত এই দুইটি কোম্পানির যে সাইকেলের কথাটি বলছি। এই সাইকেলটি দেখতে পুরো ইন্ডিয়ান হিরো সাইকেলদের মতন যা বাংলাদেশে তৈরি হয়েছে নিজস্ব মেটারিয়াল দ্বারা। তাই এই সাইকেলগুলো যদি আপনি ক্রয় করতে চান। সেক্ষেত্রে আপনাকে ৭০০০ থেকে ৭৫০০ টাকা পর্যন্ত দাম দিতে হতে পারে। এই কম দামে আপনারা ভালো সাইকেল পাবেন বলে আশা করছি।

গিয়ার সাইকেল:

বর্তমানে যে সাইকেলটি ব্যাপকভাবে প্রচলিত সেটা হলো গিয়ার সাইকেল। গিয়ার সাইকেল গুলো বাংলাদেশে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই লক্ষ্য করা যায়। সাইকেলটি তে ব্যবহার করা হয়েছে উন্নত গিয়ার ব্যবস্থা যার কারণে প্রতিটি ক্রেতাদেরই এর প্রতি একটি অন্যরকম ভালো লাগা কাজ করে।

এই গিয়ার সাইকেল গুলো বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই পাঁচ বছর থেকে ১০-১২ বছর পর্যন্ত ছেলেরা চালিয়ে থাকে। তবে এই সাইকেলগুলো অন্যান্য সাইকেল গুলো থেকে একটু বেশি দাম যার কারণে ক্রেতারা বিভ্রান্তিতে পড়ে যায়।

গিয়ার সাইকেল গুলো বিভিন্ন কোম্পানির হয়ে থাকে। যে কোম্পানিগুলো প্রায় অচেনা এ সমস্ত সাইকেল গুলো বাংলাদেশে তৈরি হয় না। যার কারনে এই কোম্পানিগুলোর সাথে তেমনভাবে পরিচয় হয়ে ওঠে না‌ বাইরে থেকে ইনপোর্ট করা হয় এই সমস্ত গিয়ার সাইকেল গুলো। এ সাইকেল গুলো দেখতে এবং মানের দিক থেকেও ব্যাপকভাবে নজর কেড়েছে প্রতিটি মানুষের। যার জন্য সচরাচর গিয়ার সাইকেল গুলো বেশি লক্ষ্য করা যায়। এই সাইকেলগুলোর বর্তমান বাজারজাত অনুযায়ী এর দাম ১২ হাজার থেকে 20 হাজার টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে।

ইন্ডিয়ান সাইকেল

বাংলাদেশী বেশ কিছু ইন্ডিয়ান সাইকেল লক্ষ্য করা যায় যেগুলো অন্যান্য সাইকেলের থেকে অনেক শক্তিশালী। সরাসরি ভারত থেকে এ সমস্ত সাইকেল গুলো অর্ডার করে বাংলাদেশে এসে থাকে এবং বাংলাদেশে এসে এসব সাইকেল ব্যাপকভাবে বিক্রি হয়ে থাকে। কেননা অন্যান্য সাইকেলের তুলনা সাইকেল গুলো ব্যাপক শক্তিশালী যার কারণে মানুষরা এসব সাইকেল গুলো ব্যবহার করে থাকে।

তাই এই সমস্ত ভারত থেকে যে সকল সাইকেল গুলো আসে এগুলো বাংলাদেশে এসে সাত থেকে 13 হাজার টাকার মধ্যেই বিক্রি হয়ে থাকে। তবে মাণের দিক থেকে এই পরিমাণ দাম দিয়ে কিনলে কখনো কেউ ঠকবে না। কেননা সাইকেলগুলোর মত আর অন্য কোন সাইকেল নেই যেগুলো বিষয় টেকসই।

এখন হয়তো আপনারা বুঝতে পেরেছেন কোন সাইকেল গুলো আপনার জন্য ভালো হবে। তাই আপনি আপনার পছন্দ অনুযায়ী ন্যায্য মূল্যে সাইকেল কিনতে পারেন। অবশ্যই সঠিক মূল্য এবং ভালো মানের সাইকেলগুলো কেনার চেষ্টা করবেন। যাতে করে কোনভাবেই আপনাকে ঠোকতে না হয়।

Related Articles

Back to top button
Close