Gadgets

গিটারের দাম ২০২৩ – কম দামে বাজারে সেরা গিটার

আপনি যদি প্রথমবারের মতন একটি গিটার কেনার কথা চিন্তা করে থাকেন সেক্ষেত্রে আপনার জন্য আমাদের এই আর্টিকেলটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কারণ আমরা এই আর্টিকেলে বিগিনার থেকে অ্যাডভান্স লেভেলের জন্য প্রতিটি গিটার সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করেছি। তাই আপনিও খুব সহজেই আমাদের এই আর্টিকেল থেকে জেনে নিতে পারেন আপনার জন্য কোন গিটারটি সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন।

বর্তমান সময়ের বিশ্বে অনেক রকম গিটার রয়েছে। কিংবা অনেক রকম গিটারের ব্র্যান্ড রয়েছে।যারা প্রতিনিয়তই মানুষের চাহিদা মোতাবেক গিটার তৈরি করে আসছে। তবে আপনি যদি গিটার নিচে চান। সেক্ষেত্রে আপনাকে প্রতিটি ব্র্যান্ড সম্পর্কে জানতে হবে এবং তাদের তৈরি প্রতিটি গিটার সম্পর্কেও জানতে হবে।

যাতে করে আপনি আপনার প্রয়োজনীয় গিটারটি নিজে থেকেই পছন্দ করতে পারেন এবং নিজের পছন্দ মতনই সেটা ব্যবহার করতে পারেন। তাই আর দেরি না করে এক্ষুনি জেনে নিন। বিভিন্ন কোম্পানির গিটারের দাম এবং তার সম্পর্কে বিস্তারিত।

বিভিন্ন ব্র্যান্ডের গিটার

সচরাচর বাংলাদেশে যে সমস্ত ব্রান্ডের গিটার গুলো পাওয়া যায় সেই সমস্ত ব্র্যান্ডগুলো হল Gibsom,singature,devisar,Yamaha,axe,tgm সহ আরো অনেক গিটার কোম্পানি রয়েছে। যারা তৈরি করেছেন মানুষের পছন্দ মতন বিভিন্ন গিটার।

এই সমস্ত কোম্পানির গিটার গুলো আপনারা খুবই কম দামে কিনতে পারবেন এবং নিজেদের ইচ্ছে পূরণ করে একটি গিটার নিতে পারবেন। তবে আপনাদের কি জানতে হবে এই গিটারগুলোর সম্পর্কে খুঁটিনাটি তথ্য। কেননা এই কোম্পানিগুলো শুধুমাত্র একটি গিটার নয় অনেক গিটার তৈরি করে থাকে এবং একেকটিকে তার এক এক নামে বিক্রি করা হয়ে থাকে যার কারণে প্রতিটি গিটার সম্পর্কে আপনাদের জানতে হবে এবং দামের দিক কেউ খেয়াল রাখতে হবে।

শেখার জন্য কোন গিটার ভালো:

তবে আপনারা যারা প্রথমবারের মতন গিটার কিনছেন বা শেখার জন্য একটি গিটার কিনতে চান। তাদের জন্য প্রয়োজন সিগনেচার এবং গিভসম ।

সাধারণত প্রতিটি গিটারিস্ট রাই সিগনেচার এবং গিভসম গিটার দিয়ে শেখা শুরু করে। কেননা প্র্যাকটিসের সময় দুইটারে অনেক চোট পেয়ে থাকে। তাই আপনি যখন কোন ভিটামিন যখন অবশ্যই একটি কম দামি গিটার কিনে শেখা উচিত।

বেশি দাম দিয়ে পিটার কিনে কখনো প্র্যাকটিস করা ঠিক নয় এতে করে গিটারটি খুব সহজেই নষ্ট হবার ভয় থাকে। তাই আপনি যখন গ্রেটার শেখার কথা চিন্তা করবেন। সে ক্ষেত্রে একটি কম দামি গিটার কেনায় ভালো। তাই আপনার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ মনে করছি এই সিগনেচার এবং গিভসম ব্র্যান্ডের গিটার।যার দাম নিয়ে নিচে আলোচনা করা হলো।

গিটারের দাম

Signature গিটারের দাম: সিগনেচার গিটার কোম্পানিটি অবস্থিত ইন্ডিয়ায়। বাংলাদেশের সাধারণত ইন্ডিয়া থেকেই এই গিটারগুলো আমদানি করা হয়ে থাকে। যার সাউন্ড এবং অন্যান্য বিষয়গুলো বেশ স্বচ্ছ। সাধারণত সিগনেচার গিটার বিক্রি হয়ে থাকে 4000 থেকে 4500 টাকার মধ্যে। আপনি এই সিগনেচার গিটারটি এই কম দামে কিনে নিজের প্র্যাকটিসের জন্য ব্যবহার করতে পারেন যা আপনার জন্য অনেকটাই ভালো হবে।

Gibson গিটারের দাম: পিটার শিকার জন্য গিভশন পিটারগুলো অনেকটাই ভালো। তবে আপনি যদি বাংলাদেশ থেকে একটি গিভশন কোম্পানির গিটার কিনতে চান। সেক্ষেত্রে আপনাকে ৫ থেকে ৬ হাজার টাকা পর্যন্ত দিতে হবে। তবে আপনি একটি ভালো গিভসন কোম্পানির গিটার কিনতে পারবেন।

Yamaha গিটারের দাম: মিউজিক্যাল জগতে ইয়ামাহা কোম্পানি রয়েছে ব্যাপক পরিচিতি। কেননা এই কোম্পানিটি শুধুমাত্র গিটারই নয় ড্রামস কিবোর্ড সহ আরও অনেক রকম ইন্সট্রুমেন্ট তৈরি করে থাকে এবং প্রতিটি ইন্সট্রুমেন্ট টি মিউটেশিয়ানদের কাছে অনেক পছন্দের। যার কারণে প্রতিটি মানুষই ইয়ামাহা কোম্পানির প্রতি একটি আস্থা রয়েছে।

ইয়ামাহা কোম্পানির বিভিন্ন মডেলের গিটার রয়েছে তার ভেতরে সুপরিচিত কিছু মডেল হল Yamaha f310, Yamaha f600 এছাড়াও আরো বেশি কিছু মডেলের গিটার রয়েছে। যাদের গিটার শেখা প্রায় শেষ তারা এই সমস্ত গিটার গুলো কিনে ব্যবহার করতে পারে।

তার ভেতরে yamaha f310 ভিডিওটির দাম ১৩ হাজার থেকে শুরু করে ১৫ হাজার টাকার মধ্যেই রয়েছে। এবং Yamaha f600 গিটারটির বর্তমান বাজার মূল্য অনুযায়ী এগারো হাজার থেকে বার হাজার টাকার মধ্যে বিক্রি হয়ে থাকে।

এছাড়াও axe, tgm এ সমস্ত কোম্পানির গিটারগুলো যদি আপনি কিনতে চান। সে ক্ষেত্রে ৭ থেকে ১০ হাজার টাকার মধ্যে আপনারা মানসম্মত কোয়ালিটির একটি গিটার কিনতে পারবেন।

Related Articles

Back to top button
Close